1. admin@dailyprotidinervor.com : Dailyprotidinervorofficial :
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৮:৪০ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
আপনার বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন
সর্বশেষঃ
গাজায় যুদ্ধবিরতি নিয়ে ‘গেম খেলছেন’ নেতানিয়াহু: হামাস মুখপাত্র ২ বছরের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেলেন ইইডির প্রধান প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন মনোনয়নের প্রার্থী সংখ্যাই প্রমাণ করে নারী জাগরণ ঘটেছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব মুসলিমদের হেদায়েত কামনায় শেষ হলো আখেরি মোনাজাত সাংবিধানিক ধারা মেনেই নির্বাচনে যাব : রওশন এরশাদ শেষ হলো জাতীয় ফলমেলা ২০২৪ মানিকনগরে নকশাবহির্ভূত ভবনে রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান-জরিমানা কেরানীগঞ্জে নকশাবহির্ভূত ভবনে রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান দক্ষিণখানে নকশাবহির্ভূত ভবন নির্মাণ করায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান মহাখালী ও জোয়ারসাহারায় নকশাবহির্ভূত ভবনে রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান উত্তরায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান ঢাকাকে বাসযোগ্য করতে রাজউকের নানা উদ্যোগ ঝড়-বৃষ্টি উপেক্ষা করে রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত শতভাগ অগ্নি নিরাপদ নিশ্চিত না হলে ভবন ব্যবহার করা যাবে না: রাজউক বাংলাদেশে আরও রোহিঙ্গা প্রবেশের শঙ্কা

ঢাকাকে বাসযোগ্য করতে রাজউকের নানা উদ্যোগ

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৮ মে, ২০২৪
  • ৫৪ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পের লে-আউট পরিমার্জন বিষয়ক আলোচনা কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। এ সময় রাজউক চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল ছিদ্দিকুর রহমান সরকার (অব.) বলেন, রাজউক ঢাকাকে বাসযোগ্য পরিবেশসম্মত নগরী বাস্তবায়নে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করছে এবং এ ব্যাপারে আমরা বদ্ধপরিকর। সোমবার (২৭ মে) রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল ছিদ্দিকুর রহমান সরকারের (অব.) সঙ্গে বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের সৌজন্য সাক্ষাৎ রাজউক চেয়ারম্যানের কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। সাক্ষাতে বেলার প্রধান নির্বাহী পরিবেশগত ও অন্যান্য বিষয়ে রাজউক চেয়ারম্যানের সঙ্গে আলোচনা করেন।
এ সময় রাজউক চেয়ারম্যান বলেন, নতুন লে-আউট প্রণয়নের আগে অবশ্যই তুলনামূলক প্রতিবেদন তৈরি করে যাচাই-বাছাই করা হবে। মূল লে-আউটকে পরিবেশগত দিক বিবেচনাপূর্বক জনস্বার্থকে গুরুত্ব দিয়ে পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে। রাজউক ঢাকাকে বাসযোগ্য পরিবেশসম্মত নগরী বাস্তবায়নে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করছে এবং এ ব্যাপারে আমরা বদ্ধপরিকর।
তিনি আরও বলেন, ইতোমধ্যে কেরানীগঞ্জ, পূবাইল ও মতিঝিলে ইকোপার্ক, উদ্যান ও নাগরিক সুবিধার জন্য কমন স্পেস তৈরির নানা প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ শুরু করেছে রাজউক, যা ঢাকার সৌন্দর্যকে বহুগুণে বাড়িয়ে তুলবে এবং টেকসই বাসযোগ্য নগরে রূপান্তরে রাজউকের প্রতিশ্রুতিকে জনগণের সামনে তুলে ধরবে।
আলোচনায় অংশ নিয়ে সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান বলেন, রাজধানীর উন্নয়নে রাজউককে সুদূরপ্রসারী ও দৃষ্টান্তমূলক কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে।
তিনি আরও বলেন, পূর্বাচলের লে-আউট সংশোধনের আগে অবশ্যই পরিবেশগত দিকগুলোর ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে এবং রাজউককে তার কার্যক্রমে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করে রাজধানীকে টেকসই, সবুজ ও পরিবেশবান্ধব নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। কিন্তু এক্ষেত্রে জনস্বার্থকে গুরুত্ব দিয়ে প্রভাবশালী মহলের উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন থেকে বিরত থাকার ব্যাপারে রাজউককে সতর্ক থাকতে হবে।
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন রাজউকের সদস্য (এস্টেট ও ভূমি), প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ, প্রকল্প পরিচালক, পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্প এবং রাজউকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটেগরির আরও খবর